Saturday , November 28 2020
Home - রাজশাহী বিভাগ - নওগাঁ - মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেন, নইলে বিপদ আছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
uttarancholnews24

মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেন, নইলে বিপদ আছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নওগাঁ সংবাদদাতা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মাদক ব্যবসায়ীদেরকে হুশিয়ারী দিয়ে বলেন, যারা এখন এ ব্যবসার সাথে জড়িত আছেন সময় আছে এ ব্যবসা ছেড়ে দেন। নইলে আপনাদের বিপদ আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মাদক নিমূলে জিরো টরারেন্স ঘোষণা করেছেন। আমরা সেই লক্ষ নিয়ে কাজ করছি। মাদক ব্যবসায়ীরা দেশের শত্রু সমাজের শত্রু। মাদকের হাত থেকে দেশের যুব সমাজকে রক্ষা করতে হবে। মাদককে এই দেশ থেকে দূর করবোই।

আজ রোববার বিকেলে পত্নীতলার নজিপুর শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে থানা আ’লীগের উদ্যোগে আয়োজিত বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বিগত বিএনপি-জামাত জোট সরকারের আমলে যারা বিদেশে টাকা পাচার করেছেন তাদেরকে অবশ্যই শাস্তি পেতে হবে। আমাদের হাতে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রমান রয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, এ দেশের মানুষ আর জঙ্গিবাদ চায় না। শেখ হাসিনার সরকার এদেশ থেকে জঙ্গীবাদকে নিমূূল করার জন্য এখনও কাজ করছে। সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করার জন্য শেখ হাসিনা বিশ্বে মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন। বর্তমান সরকারের ১০ বছরে সারা দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে স্বাধীনতার পর আর কোন সরকারের আমলে হয়নি। বর্তমানে দেশে বিদ্যুৎ ও খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। শেখ হাসিনার সরকার নারীদেরকে বিশেষভাবে সম্মানীত করেছে। এদেশের আলেম ওলামাদেরকে শেখ হাসিনার সরকার মর্যাদা দিয়েছেন। এখন আলেমরা শেখ হাাসিনার পদক্ষেপের সুফল পাচ্ছেন।

আগামীতে শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসতে পারলেও নওগাঁর পত্নীতলাকে জেলা ঘোষনা করার আশ্বাসও দেন তিনি।

উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আলহাজ্ব ইছাহাক হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন, জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শহীদুজ্জামান সরকার এমপি, জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি, ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিম এমপি, জয়পুরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, পত্নীতলা থানা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল গাফফার প্রমুখ।

 

এর আগে গনপূর্ত বিভাগের তত্বাবধানে ৪ কোটি ১৩ লাখ টাকা ব্যয়ে পত্নীতলা থানা ভবনের নির্মান কাজের ফলক উন্মোচন এবং একটি বৃক্ষ রোপন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ অতিথিবৃন্দরা।

জনসভা শুরুর আগে থেকে ধামইরহাট ও পত্নীতলা উপজেলা থেকে নেতাকর্মীরা দলীয় প্রতিক নৌকা নিয়ে মিছিল সহকারে জনসভায় অংশ গ্রহণ করেন।