Saturday , November 28 2020
Home - রাজশাহী বিভাগ - নওগাঁ - সাবেক সেনা কর্মকর্তার ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ সদস্য আহত
uttarancholnews24

সাবেক সেনা কর্মকর্তার ছুরিকাঘাতে দুই পুলিশ সদস্য আহত

নওগাঁ সংবাদদাতা : নওগাঁয় বাধ্যতামূলকভাবে অবসরপ্রাপ্ত সেনাবাহিনীর এক মেজর কর্তৃক ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন দুই পুলিশ কর্মকর্তা। নওগাঁ সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. আনোয়ার হোসেন এবং সাব ইন্সপেক্টর হানিফ উদ্দিন মণ্ডল নামের ওই দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেনকে এ এ্যন্ড আর এভিয়েশনের একটি এয়ার এ্যাম্বুলেন্সযোগে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

সদর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো. আব্দুল হাই জানান, সেনাবাহিনী থেকে বাধ্যতামূলকভাবে অবসরপ্রাপ্ত মেজর মাহতাব-ই-রাজু টাঙ্গাইল ক্যান্টনমেন্টে কর্মরত ছিলেন। প্রায় এক বছর আগে তাকে বাধ্যতামূলকভাবে অবসর প্রদান করা হয়।

পারিবারিকভাবে দাবি করা হয়েছে, বর্তমানে তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ। গত তিনদিন আগে নওগাঁ শহরের উকিলপাড়াস্থ বাসায় এসে নানাভাবে পরিবারের সদস্যদের উত্যক্ত করছিলেন। মা ও বোনকে মারধর করছিলেন। মাকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করছিলেন। ঘরের দরজা বন্ধ করে মা ও বোনকে মারধর করার অভিযোগও করেন তারা। নিজের বাড়িসহ আশপাশের বাড়িঘরও ভাঙচুর করে ক্ষতিসাধন করছিলেন। এসব থেকে মুক্তি পেতে পুলিশের সহযোগিতা চেয়ে উক্ত রাজুর বোন নাজনীন নাহার গতকাল মঙ্গলবার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এরই প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে নওগাঁ সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ (তদন্তু) আনোয়ার হোসেন, এ এস আই হানিফ উদ্দিন মণ্ডল সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাদের বাড়িতে যান। এ সময় মেজর মাহতাব-ই-রাজু তাদের উপর চড়াও হন। এক পর্যায়ে তাকে বুঝিয়ে তারা সেখান থেকে চলে আসেন। পরে রাজু আত্মহত্যা করবেন বলে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ করে দেন।

এ সময় তার মা ও বোন আবার ইন্সপেক্টর তদন্ত আনোয়ার হোসেনকে ছেলে ও ভাইকে বাঁচানোর আকুল আবদেন জানিয়ে পুনরায় আসার অনুরোধ জানালে তারা আবার সেখানে ফিরে যান। অনেক ডেকেও যখন দরজা খোলে না তখন বাধ্য হয়ে দরজা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করেন তারা। এ সময় দরজার আড়াল থেকে বেরিয়ে ধারালো ছুরি নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ইন্সপেক্টর আনোয়ার হোসেনের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়। একই সাথে সাব ইন্সপেক্টর হানিফ উদ্দিনও ছুরিকাঘাতে আহত হন।

মারাত্মক আহত অবস্থায় আনোয়ার হোসেন ও হানফি উদ্দিনকে নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মেজর মহাতাব-ই-রাজুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

আহত পুলিশ ইন্সপেক্টর মো. আনোয়ার হোসেনকে আজ বুধবার বিকাল ৪ টায় এ এন্ড আর এভিয়েশনের একটি এয়ার এ্যাম্বুলেন্সযোগে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। আটক অবসরপ্রাপ্ত মেজর মাহাতাব-ই-রাজুকে জেলা হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। উক্ত মেজর রাজু নওগাঁ শহরের উকিলপাড়ার মৃত আবুল বজলের ছেলে।