Tuesday , November 24 2020
Home - লালপুর - লালপুর-বাগাতিপাড়ায় এমপি কালামকে চাইছে তৃনমূল আ’লীগ

লালপুর-বাগাতিপাড়ায় এমপি কালামকে চাইছে তৃনমূল আ’লীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসন। এ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাকসু) এর নির্বাচিত সাবেক এজিএস ও নাটোর জেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ। সাংসদ হবার পর স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে প্রথমবারের মত এ এলাকার দুই উপজেলার ১৫ জন চেয়ারম্যানের মধ্যে ১৪ জনই নৌকা মার্কার বিজয়ী চেয়ারম্যান। বাকী ১ জনও স্বতন্ত্র প্রার্থী ও আওয়ামীলীগ অনুসারী। চেয়ারম্যানদের বিজয়ী করার পাশাপাশি নাটোর জেলা পরিষদের ৩ জন সদস্য তৈরি করেছেন দলের ত্যাগী নেতাদের মধ্য থেকে। এছাড়া তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের চাঙ্গা করতে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌর ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নিয়মিত বর্ধিত সভার পাশাপাশি উঠান বৈঠক করেছেন যা সকলের নিকট ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। যার ফলে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বর্তমানে নাটোর-১ আসনের আওয়ামীলীগ নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ। যার পুরো কৃতিত্ব বর্তমান সাংসদ আবুল কালাম এমপি’র। এমনটিই জানিয়েছেন দলের তৃনমূল পর্যায়ের নের্তৃবৃন্দের পাশাপাশি লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক। মঙ্গলবার (১৮ সেপ্টেম্বর) স্বাক্ষরিত লিখিত বক্তব্যে লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু ও সাধারন সম্পাদক ইসাহাক আলী আরো জানান, পদ-বিহীন এবং আওয়ামীলীগের সাথে কোন যোগাযোগ নাই, আওয়ামীলীগের কর্মকান্ডে কোন দিন অংশগ্রহণ করে নাই, এ ধরনের কতিপয় স্বার্থান্নেষী ও অরাজনৈতিক ব্যাক্তি বিএনপি জামায়াতের মদদ পুষ্ঠ হয়ে নিজেদেরকে এমপি প্রার্থী হিসেবে পরিচয় দিয়ে আওয়ামীলীগ সহ সকল সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীদের বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে। উল্লেখ্য যে- ঐ সকল ব্যাক্তি বিগত বিএন পি জামায়াত জোট সরকারের সময় তাদের রোসানোলে না পড়ে বরং সুবিধা ভোগ করেছে। আমরা দৃঢ় ভাবে বলতে চাই স্বাধীনতা উত্তর নাটোর-১ আসনে যত গুলো এমপি এসেছেন তাদের সকল উন্নয়ন একত্রিত করলেও বর্তমানে জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের মাননীয় সংসদ সদস্য এ্যাড. আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে অত্র এলাকায় অনেক বেশি উন্নয়ন সাধিত হয়েছে । যেমনঃ দয়ারামপুরে বিশ্ববিদ্যালয় (বাউয়েট), নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ কে বহুমুখী শিল্পপার্কে উন্নীতকরণ, লালপুরে পদ্মার চরে অর্থনৈতিক জোন(প্রক্রিয়াধীন), এ ধরনের মেগা প্রকল্প সহ শতভাগ বিদ্যুৎ, রাস্তা ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত করেছে। শুধুমাত্র সরকারের উন্নয়ন কাজকেই ত্বরান্বিত করেন নাই সেই সাথে বর্তমান সাংসদ দক্ষ ও মেধাবী সংগঠক হিসেবে লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সহ সকল সহযোগী সংগঠনকে অতীতের যেকেনো সময়ের চাইতে শক্তিশালী সংগঠনে পরিণত করেছেন যার প্রমাণ গত ইউনয়ন পরিষদ নির্বাচনে লালপুর উপজেলার ১০ ইউনিয়নের ১০টিতেই আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয় অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে । তিনি একজন সাবেক তুখোড় ছাত্রনেতা যিনি রাকসুর নির্বাচিত এজিএস, বিএনপি জামায়াতের জেল জুলুম হুলিয়াকে পদদলিত করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠার জন্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। আমরা তার কর্মী হিসেবে গর্বিত এবং তাকে এমপি মনোনিত করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার প্রতি চির কৃতজ্ঞ। লালপুর উপজেলা, পৌর,সকল ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন যুবলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন, নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস্ আঞ্চলিক শাখা শ্রমিকলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন কৃষকলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামীলীগ, লালপুর উপজেলা ও সকল ইউনিয়ন যুবমহিলা লীগ এর প্রায় ১১হাজার নেতা-কর্মী জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন বার্তা প্রতিটি ঘরে ঘরে পৌছে দেওয়া ও আগামী মহান জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এ্যাড. আবুল কালাম আজাদ কে পুনঃবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত করার জন্যে ইস্পাত কঠিন ঐক্যবদ্ধ।