Friday , December 4 2020
Home - ঢাকা - টাঙ্গাইল - আ’লীগ নেতাসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম
uttarancholnews24.

আ’লীগ নেতাসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম

ডেস্ক রিপোর্ট :  পূর্ব শত্রুতার জের ধরে টাঙ্গাইলের নাগরপুরে আওয়ামী লীগ নেতাসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ।

হামলার পর সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহরা দিলে জনমনে আতংক দেখা দেয়।

এ সময় ভয়ে জনতা দ্বিগবিদিক ছুটাছুটি করে। মুহূর্তের মধ্যে বন্ধ হয়ে যায় তেবাড়িয়া বাজারের সব দোকানপাট।

ঘটনার পর বিপুলসংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলের আশপাশে মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

আজ বুধবার দুপুরে উপজেলার সলিমাবাদ তেবাড়িয়া ইসলামিয়া উচ্চবিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন- তেবাড়িয়ার গ্রামের মৃত. আমিনুল ইসলামের ছেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহীদুল ইসলাম অপু (৪৮), আওয়ামী লীগ নেতা রতন ভূইয়া (৪৮), সুমন খান (৩০), মাহমুদুল হক (৩২) ও সোলায়মান হোসেন বিপ্লব (৪২)।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে মো. শাহীদুল ইসলাম অপুসহ ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডাক্তার রেফার্ড করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মো. শাহীদুল ইসলাম অপুর সঙ্গে আধিপত্যকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের সলিমাবাদ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মো. আজাহারুল ইসলাম মন্টুর দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছে।

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শাহীদুল ইসলাম অপু কর্মীদের নিয়ে তেবাড়িয়া স্কুল মাঠে স্থানীয় যুবলীগের সম্মেলনে যাচ্ছিলেন। অপু স্কুল গেটের সামনে পৌঁছলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা মন্টু গ্রুপের লোকজন তাদের ওপর হামলা করে। এ সময় অপুসহ ৫ জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে তারা।

নাগরপুর থানার ওসি মো. আলম চাঁদ যুগান্তরকে জানান, সব ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

হামলার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।