Tuesday , November 29 2022
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
Home - জাতীয় - ছাগল চুরি করে পালানোর সময় গণধোলাইয়ের স্বীকার যুবলীগ নেতা 

ছাগল চুরি করে পালানোর সময় গণধোলাইয়ের স্বীকার যুবলীগ নেতা 

নিউজ ডেস্কঃ

ঠাকুরগাঁও জেলার রানীশংকৈল উপজেলা থেকে
ছাগল চুরি করে পালানোর সময় পীরগঞ্জ উপজেলার ১ যুবলীগ নেতা সহ দুইজনকে গণধোলাই দিয়েছে স্থানীয়রা। রোববার (২ অক্টোবর) দুপুরে রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

যুবলীগ নেতাসহ দুইজনকে গণধোলাই দেয়ার একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যুবলীগের নেতার নাম হাবীবুল্লাহ হাবীব। তিনি নিজেকে পীরগঞ্জ পৌর আওয়ামী যুবলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। হাবীব পৌর শহরের গুয়াগাঁও মহল্লার জবাইদুরের ছেলে। আরেকজনের নাম মিরাজুল ইসলাম। তিনি পীরগঞ্জ উপজেলার তাজপুর গ্রামের মোহাম্মদ কোম্পানীর ছেলে।

 

তারা সদর উপজেলার মহেশপুর গ্রামের একটি আম বাগান থেকে ছাগল চুরি করে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়ে। প্রত্যক্ষদর্শী সলেমান আলী বলেন, নেকমরদ বাজারে তাদেরকে যখন ছাগল সহ ধরা হয়েছে, তখন জিজ্ঞেস করা হলে, তারা বলে পিকনিক খাওয়ার জন্য ছাগল চুরি করা হয়েছে। তারা তখন নিজেদের আওয়ামী লীগের নেতা হিসেবে করেছে। ছাগল মালিকের কন্যা সুমাইয়া জানান, মহেশপুরের একটি আম বাগান থেকে আমাদের একটি ছাগল মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল ঐ দুই যুবক। এ সময় প্রতিবেশী এক ভাই সহ মোটরসাইকেলে করে তাদের ধাওয়া করি। এক পর্যায়ে নেকমরদ বাজারে আসার পর স্থানীয়রা মিলে তাদের ধরা হয়।

এ বিষয়ে হাবিবুল্লাহ হাবীবের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে পীরগঞ্জ পৌর আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজালাল বাবু বলেন, হাবীব ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নয়, সাধারণ সদস্য। তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।